top
top

বাপুশের খুনী হৃদয় ও হাসান গ্রেফতার: স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি

বাপুশের খুনী হৃদয় ও হাসান গ্রেফতার: স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি
Spread the love

স্টাফ রিপোর্টার: সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামস্থ ফজলুল হকের পুত্র আছির উদ্দিন ওরফে বাপুশকে খুনের সাথে জড়িত হৃদয় ও হাসানকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ। আসামীদের আটকের পর ১৬৪ ধারায় খুনের সাথে জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করে জবানবন্দি দেয় আদালতে। পরে সোমবার সকালে আদালত আসামীদের জেল হাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেন।

সুত্র জানায়, গত শনিবার রাতে সুরমা ইউনিয়নের মঈনপুর(জগন্নাথপুর) গ্রামে নিজ বাড়ীর সামনে দাড়িয়ে থাকা আছির উদ্দিন ওরফে বাপুশকে বুকে ছুরিকাঘাত করে খুন করে হৃদয় ও হাসান। বাপুশের কাছে হাসান ২০টাকা পাওনা ছিল। ২০টাকা দিতে না পারায় হৃদয় ও হাসান বাপুশকে ছুরিকাঘাত করলে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। সুরমা ইউনিয়নের বিটপুলিশংয়ের দায়িত্বে থাকা ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই অজয় রায়ের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্স ও সদর থানার ওসিসহ উর্দ্ধতন পুলিশ কর্মকর্তার প্রানান্ত চেষ্টায় প্রধান আসামী হৃদয় ও হাসান কে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই অজয় রায় জানান, মাত্র ২০টাকার জন্য একটি মানুষকে খুন করে ফেলবে আর আসামীরা পালিয়ে যাবে সেটা হতে দেয়া যায় না। তাই সদর থানার ওসিসহ উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের আন্তরিক প্রচেষ্টায় খুব কম সময়ের মধ্যে কয়েকঘণ্টার ব্যবধানে আসামীদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হই এবং আসামীরা ১৬৪ ধারায় আদালতে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দেয়। এ ব্যাপারে সদর থানার ওসি মো: শহিদুর রহমান জানান, খুনিদের রক্ষা নাই। উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের সার্বিক সহযোগিতায় ঘাতক হৃদয় ও হাসানকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করতে সক্ষম হই।

এইচকে / পিজে